Exclusive

দাঁড়িয়ে মোত‍ার ক্ষতিকর দিকগুলো !

বেশিরভাগ পুরুষই দাঁড়িয়ে মুততে ভালোবাসেন। কিন্তু আপনি জানেন কি, একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করার ফলে শরীরে মারত্মক ক্ষতি হয়। দাঁড়িয়ে মোতা বা প্রসাব করা মারাত্মক একটি বদঅভ্যাস। দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পুরুষের যে সব মারাত্মক ক্ষতি হয়, তা নিয়ে আমাদের আজকের এই সচেতনতামূলক পোস্ট। এক নজরে দেখে নিন দাড়িয়ে প্রস্রাব করার মারাত্বক ক্ষতিকর দিকগুলো !

১. দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের দূষিত পদার্থগুলি মূত্রথলির নীচে গিয়ে জমা হয়। অথচ বসে প্রস্রাব করলে মূত্রথলিতে চাপ লাগে, ফলে সহজেই ওসব দূষিত পদার্থ শরীর থেকে বেরিয়ে যায়।

২. দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পেটের উপরের অংশে কোনও চাপ পড়ে না। ফলে দূষিত বায়ু স্বাভাবিক ভাবে বের হতে পারে না। উল্টে তা শরীরের উপর দিকে উঠে যায়। এর ফলে শরীরের অস্থিরতা, রক্তচাপ, হৃদস্পন্দনের গতি বৃদ্ধি পায়।

৩. দীর্ঘদিন দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের বেগ ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

৪. দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের দূষিত পদার্থগুলি শরীর থেকে ঠিক মতো বেরিয়ে যেতে পারে না। সেগুলি মূত্রথলির নীচে গিয়ে জমা হয়। দীর্ঘদিন দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে এই দূষিত পদার্থগুলি জমতে জমতে কিডনিতে পাথর সৃষ্টি করে।

৫. একাধিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যাঁরা নিয়মিত দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করেন, তাঁরা শেষ জীবনে ডায়াবেটিস, জন্ডিস বা মারাত্মক কিডনির অসুখে আক্রান্ত হন। সুতরাং আজই বদলে ফেলুন আপনার দাঁড়িয়ে মোতার বদভ্যাস। সুস্থ পুরুষাঙ্গ নিয়ে বাঁচুন দীর্ঘদিন…

আরো পোড়ুন~ বুদ্ধি কারে কয় স্ত্রী তার স্বামী কে মেসেজ করলোঃ অফিস থেকে আসার সময় 1 kg আটা, 1 kg আলু আর 500 gm চিনি নিয়ে আসবে। আর সবিতা তোমাকে দেখা করতে বলেছে। স্বামী: সবিতা কে? স্ত্রী: কেউ না । তুমি মেসেজটা পড়লে কিনা sure হয়ে নিলাম । গল্পে টুইস্ট স্বামী: কিন্তু আমি তো সবিতার সাথেই আছি, তুমি কোন সবিতার কথা বলছো? স্ত্রী : তুমি কোথায় ? স্বামী: সব্জি বাজারের কাছাকাছি। স্ত্রী: তুমি ওখানেই অপেক্ষা কর, আমি আসছি । 10 মিনিটের পর স্ত্রী সব্জি বাজারে পৌঁছে তার স্বামীকে মেসেজ পাঠালো “কোথায় আছো তুমি” ? স্বামী আমি অফিসে আছি, এখন তোমার যা বাজার দরকার, সেটা কিনে নাও এ কেমন বিচার

বুদ্ধি কারে কয় স্ত্রী তার স্বামী কে মেসেজ করলোঃ অফিস থেকে আসার সময় 1 kg আটা, 1 kg আলু আর 500 gm চিনি নিয়ে আসবে। আর সবিতা তোমাকে দেখা করতে বলেছে। স্বামী: সবিতা কে? স্ত্রী: কেউ না । তুমি মেসেজটা পড়লে কিনা sure হয়ে নিলাম । গল্পে টুইস্ট স্বামী: কিন্তু আমি তো সবিতার সাথেই আছি, তুমি কোন সবিতার কথা বলছো? স্ত্রী : তুমি কোথায় ? স্বামী: সব্জি বাজারের কাছাকাছি। স্ত্রী: তুমি ওখানেই অপেক্ষা কর, আমি আসছি । 10 মিনিটের পর স্ত্রী সব্জি বাজারে পৌঁছে তার স্বামীকে মেসেজ পাঠালো “কোথায় আছো তুমি” ? স্বামী আমি অফিসে আছি, এখন তোমার যা বাজার দরকার, সেটা কিনে নাও এ কেমন বিচার
লেখক Maria Jahan Mantasha