Exclusive

পাদ কি? মানুষ কেনো পাদ দেয়?

পাদ হচ্ছে সৃষ্টিকর্তার তরফ থেকে সভ্যতা ও মানবজাতির জন্য উপহারস্বরুপ। প্রাণীজগতের প্রায় প্রতিটা জীবই পাদ দেয়। পাদ দেয় মাছ, কাঁকড়া, অক্টোপাস, নীল তিমি সহ প্রায় সবধরণের সামুদ্রিক জীব বা জলদ প্রাণী। বিশ্বের বুকে এমন কোনো মহাপুরুষের জন্ম হয়নি যে কিনা জীবনে কখনো পাদ দেয়নি বা পাদ দেয়া ছাড়াই মরেছে। এমনকি স্বয়ং পৃথিবীটাই সৌরজগতে তার নিজের অবস্থানে থেকে প্রতিনিয়ত পাদ দিয়ে যাচ্ছে। যার কারণে পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে থাকা কার্বন ডাই অক্সাইড, হিলিয়াম সহ অন্যান্য বিষাক্ত উপাদানগুলো বের হয়ে যেতে পারছে। পরিচ্ছন্ন অক্সিজেনে সজীব হচ্ছে পৃথিবী। দেয়া নেয়ার এ খেলায় আমরাই যেনো জয়ী !

কিভাবে পাদের উৎপত্তি?

খেলতে খেলতে পাদের উৎপত্তি হয়েছিলো। হ্যাঁ আপনি ঠিকই শুনেছেন। আদিম যুগের মানবেরা যখন ঝোঁপঝাড়ে লুকিয়ে টুকপালানি খেলত, তখন কোনো এক আদিম পুরুষ ঘন সবুজ ঘাসের আড়ালে কিংবা কাশফুলের বাগানে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় নিজের অজান্তে গোপন মুখ দিয়ে একটি চিৎকার করেছিলো। সেখান থেকে মানবজাতি পরিচিত হলো পাদের সাথে…

তারপর থেকে আজ পর্যন্ত পৃথিবীর নানা প্রান্তের নানান শ্রেণী বর্ণ ও গোত্রের মানুষ ঐতিহ্যের সাথে এটাকে বরণ করে আসছে। জেনে অবাক হবেন, বাংলাদেশে নবান্ন উৎসবে কৃষকেরা যেমন নতুন ধানের উৎসবে নতুন রঙে সাজে, তেমনি কলোম্বিয়া, পাপুয়া নিউগিনি ও কিরিবাতি সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষেরাও উৎসব-ঐতিহ্যের সাজে পাদকে বরণ করে নেয়।

মেক্সিকোতে জোরপূর্বক পাদ দিতে পারা মানুষদের সম্মানের চোখে দেখা হয়…

মৃত্যুর পরেও মানুষ পাদ দেয়

আপনি যদি মনে করেন মৃত্যুর সাথে সাথে সব শেষ হয়ে গেছে। তাহলে আপনি ভুল। মানুষ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করার সাথে সাথেই তার পাকস্থলিতে জমা থাকা সব হাওয়া বের হয়ে যায়। মৃত্যুক্ষণে পাদই হয় মানুষের সবচেয়ে বড় সঙ্গী…

পাদ নিয়ে লাজুকতা

প্রিয়জন কি আপনার সামনে পাদ দিয়ে অন্যদিকে তাকিয়ে থাকে? যদি তিনি এমনটা করে থাকেন, তাহলে আপনি তাকে বলুন পাদ কোনো লজ্জা বা ছলছাতুরির বিষয় নয়। বরং বেঁচে থাকার লড়াইয়ে তিনি আরো এক ধাপ এগিয়ে গেলেন…

পাদেরও রয়েছে একটি খারাপ দিক

অনেকে আছেন যারা রাস্তাঘাটে হাবিজাবি খেয়ে পাদ দেন। এরা নাশকতা ছড়াতে ব্যাপক পটু। কারো সাথে মনোমালিন্য হলেই তার সামনে গিয়ে এরা চুপিসারে পাদ দিয়ে আসেন। এটি আসলে একটি ক্রাইম…

পরিশেষে এটাই বলতে চাই, পাদকে অবহেলা নয়। শেষ বিকেলে প্রিয়জনের রাগ ভাঙাতে তার সামনে গিয়ে একটি পাদ দিন। দেখবেন সম্পর্ক ঠিক হয়ে যাবে… 🙂

আরো পড়ুনঃ