Exclusive

মদ খেলে ভালো ইংরেজি বলা যায় : বলছে গবেষণা

অ্যালকোহল খেলে সাবলীলভাবে ইংরেজি বলতে পারা যায় গবেষকরা জানিয়েছেন এমনটি। জার্মান শিক্ষার্থীদের ওপর গবেষণা শেষে একথা জানিয়েছেন ব্রিটিশ গবেষকরা। গবেষণাটি এ সপ্তাহে জার্নাল অব সাইকোফার্মাকোলোজিতে প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষকরা আরো জানিয়েছেন, মাতৃভাষার বাইরে দ্বিতীয় যে কোন ভাষা শেখার ক্ষেত্রে একই কথা প্রযোজ্য। অর্থাৎ, সীমিত মাত্রায় অ্যালকোহল খেলে সাবলীলভাবে দ্বিতীয় ভাষায় কথা বলতে পারবেন যে কেউ। তবে এর পেছনে মূল কারণ হচ্ছে, অ্যালকোহল খেলে নার্ভাসনেস ও দ্বিধা কেটে যায়।

৫০ জনকে সমান দুইভাগে ভাগ করা হয়। ইংরেজি বলার একটি পরীক্ষা নেওয়ার আগে অর্ধেক শিক্ষার্থীকে সীমিত মাত্রায় অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়। বাকিদের পানি খাওয়ানো হয়।

পরে উভয় গ্রুপের অডিও রেকর্ড গবেষণার সঙ্গে যুক্ত নন এমন শিক্ষকদের পরীক্ষা করতে বলা হয়। শিক্ষকদের কেউই অ্যালকোহল খাওয়ানোর কথা জানতেন না। ফলাফলে দেখা যায়, অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীরা অন্যগ্রুপের তুলনায় অনেক বেশি নম্বর পেয়েছে।

তবে ফলাফল প্রকাশের আগে অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাওয়া হয় তারা কেমন পরীক্ষা দিয়েছে। উত্তরে তাদের বেশিরভাগই পরীক্ষা ভালো হয়নি বলে জানায়।

গবেষকরা জানান, অ্যালকোহল খেলে দ্বিতীয় ভাষা ভালো বলতে পারার কারণ এটি মানুষের নার্ভাসনেস ও দ্বিধা কাটিয়ে তোলে। সাধারণত মাতৃভাষা নয়, এমন ভাষায় কথা বলতে গেলে মানুষের মধ্যে নার্ভাসনেস বেশি কাজ করে।

তবে একই ভাবে অ্যালকোহলের কারণে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশেষত স্মৃতি ও মনোযোগকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এটি। তবে বাড়িয়ে দেয় অতি আত্মবিশ্বাস।

বুঝতে অসুবিধা হলে আবার পড়ুন

অ্যালকোহল খেলে সাবলীলভাবে ইংরেজি বলতে পারা যায় এমনটি জানিয়েছেন গবেষকরা। জার্মান শিক্ষার্থীদের ওপর গবেষণা শেষে এ কথা জানিয়েছেন ব্রিটিশ গবেষকরা। গবেষণাটি এ সপ্তাহে জার্নাল অব সাইকোফার্মাকোলোজিতে প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষকরা আরো জানিয়েছেন, মাতৃভাষার বাইরে দ্বিতীয় যে কোন ভাষা শেখার ক্ষেত্রে একই কথা প্রযোজ্য। অর্থাৎ সীমিতমাত্রায় অ্যালকোহল খেলে সাবলীলভাবে দ্বিতীয় ভাষায় কথা বলতে পারবেন যে কেউ। তবে এর পেছনে মূল কারণ হচ্ছে, অ্যালকোহল খেলে নার্ভাসনেস ও দ্বিধা কেটে যায়।

৫০ জনকে সমান দুইভাগে ভাগ করা হয়। ইংরেজি বলার একটি পরীক্ষা নেওয়ার আগে অর্ধেক শিক্ষার্থীকে সীমিত মাত্রায় অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়। বাকিদের পানি খাওয়ানো হয়।

পরে উভয় গ্রুপের অডিও রেকর্ড গবেষণার সঙ্গে যুক্ত নন এমন শিক্ষকদের পরীক্ষা করতে বলা হয়। শিক্ষকদের কেউই অ্যালকোহল খাওয়ানোর কথা জানতেন না। ফলাফলে দেখা যায়, অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীরা অন্যগ্রুপের তুলনায় অনেক বেশি নম্বর পেয়েছে।

তবে ফলাফল প্রকাশের আগে অ্যালকোহল খাওয়ানো হয়েছে এমন শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাওয়া হয় তারা কেমন পরীক্ষা দিয়েছে। উত্তরে তাদের বেশিরভাগই পরীক্ষা ভালো হয়নি বলে জানায়।

গবেষকরা জানান, অ্যালকোহল খেলে দ্বিতীয় ভাষা ভালো বলতে পারার কারণ এটি মানুষের নার্ভাসনেস ও দ্বিধা কাটিয়ে তোলে। সাধারণত মাতৃভাষা নয়, এমন ভাষায় কথা বলতে গেলে মানুষের মধ্যে নার্ভাসনেস বেশি কাজ করে।

তবে একই ভাবে অ্যালকোহলের কারণে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশেষত স্মৃতি ও মনোযোগকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এটি। তবে বাড়িয়ে দেয় অতিব আত্মবিশ্বাস।