Bangladesh, Crime

রুমমেটের পেস্ট চুরি করে ব্রাশ করা নিয়ে সংঘর্ষ। আহত ৬ মেস মেম্বার!

রুমমেটের পেস্ট চুরি করা নিয়ে কথাকাটাকাটি নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত, এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে গেলে আহত হয় ৬ মেস মেম্বার। যারা ফার্মগেটের আশেপাশে কলেজ ভার্সিটিতে পড়ে। কিভাবে এই ঘটনা ঘটলো সেটা জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মেসের বুয়া আমাদের বিস্তারিত জানান।

বুয়া বলেন- অনেকদিন যাবত তিন রুমের ফ্লাটে মেস করে ১৩ জন ছাত্র এখানে থাকেন। বেশকিছুদিন ধরে রমেশ নামে এক মেস মেম্বার অভিযোগ করে আসছিলো, তার ক্লোজআপের পাতা দশ দিনেই শেষ হয়ে যাচ্ছে। নিশ্চয়ই কেউ চুরি করে পাতা থেকে পেস্ট ব্যাবহার করে।

এই ঘটনা নিয়ে আজকে মেসে বিচার বসে। রমেশের রুমমেটরা অভিযোগ তোলে পাশের রুমের কবির, ছাব্বির, মামুন, মুস্তাফিজুর, মুসাদ্দেক, টনি, মিঠুন, টগর, সাদিকের উপর। এ সময় কথাকাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। আর এতেই আহত হয় সব মেস মেম্বার। পরবর্তীতে বুয়ার হস্তক্ষেপে সবাই শান্ত হন।

তবে এখনো মেসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আমরা প্রায় সব মেম্বারের সাথেই যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছি, তবে এ ব্যপারে কেউ মুখ খোলেনি।

আবারো পড়ুন ভালো লাগলে –

রুমমেটের পেস্ট চুরি করা নিয়ে কথাকাটাকাটি নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত, এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে গেলে আহত হয় ৬ মেস মেম্বার। যারা ফার্মগেটের আশেপাশে কলেজ ভার্সিটিতে পড়ে। কিভাবে এই ঘটনা ঘটলো সেটা জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মেসের বুয়া আমাদের বিস্তারিত জানান।

বুয়া বলেন- অনেকদিন যাবত তিন রুমের ফ্লাটে মেস করে ১৩ জন ছাত্র এখানে থাকেন। বেশকিছুদিন ধরে রমেশ নামে এক মেস মেম্বার অভিযোগ করে আসছিলো, তার ক্লোজআপের পাতা দশ দিনেই শেষ হয়ে যাচ্ছে। নিশ্চয়ই কেউ চুরি করে পাতা থেকে পেস্ট ব্যাবহার করে।

এই ঘটনা নিয়ে আজকে মেসে বিচার বসে। রমেশের রুমমেটরা অভিযোগ তোলে পাশের রুমের কবির, ছাব্বির, মামুন, মুস্তাফিজুর, মুসাদ্দেক, টনি, মিঠুন, টগর, সাদিকের উপর। এ সময় কথাকাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। আর এতেই আহত হয় সব মেস মেম্বার। পরবর্তীতে বুয়ার হস্তক্ষেপে সবাই শান্ত হন।

তবে এখনো মেসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আমরা প্রায় সব মেম্বারের সাথেই যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছি, তবে এ ব্যপারে কেউ মুখ খোলেনি।