Exclusive

কথা বলছে সুমনের টাকি মাছ!

সুমন ঢাকার একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। গতোকাল রাতে সে বন্ধুদের সাথে গাঁজা খেয়ে মেসে ফিরে আসে গভীর রাতে। এসেই বিছানায় ঝাঁপিয়ে পরে। সঙ্গে সঙ্গেই ঘুম। সুমনের ঘুম ভাঙ্গে মাঝরাতে। ঘুম ভাঙে এক অদ্ভূত কন্ঠস্বর শুনে।

ইন্ডিয়ার মেয়েদের  yoga দেখতে ক্লিক করুন

কেউ একজন কিন্নরকণ্ঠে সুমনকে ডাকছে। “সুমন, এই সুমন। সুমন ওঠো!” বিছানা থেকে ধরফরিয়ে ওঠে সুমন। চারিদিকে তাকিয়ে কোনো মানুষের অস্তিত্ব দেখতে না পেয়ে আরো ভয় পেয়ে যায় সে। চোখ কচলে নিজের হুঁশ ফিরিয়ে আনার পর সুমন বুঝতে পারে কথা বলা জিনিসটা কোনো মানুষ নয়, তার নিজস্ব টাকি মাছ।

অনলাইন শপ evaly থেকে মাত্র ২৯৯ টাকায় স্মার্টফোন জিতে নিন

টাকি মাছ কথা বলতে পারে দেখে আনন্দে অভিভূত হয়ে যায় সুমন। সারারাত সে টাকি মাছের সাথে গল্প করে। সে জানতে পারে একজন টাকি মাছের সুখ দুঃখ আনন্দ বেদনার কাব্য। ক্ষুধার্ত টাকি মাছের আর্তনাদ শুনে তার হৃদয় কেঁপে ওঠে। টাকি মাছের বন্দী জীবনের গল্প জেনে নিজের প্রতি ধিক্কারে থুতু ফেলে সুমন। অবশেষে সে সিদ্ধান্ত নেয়, পরদিন সকালেই টাকি মাছের এই দুঃসহ জীবনের মুক্তি আনবে সে। বুয়া এলেই বুয়াকে অনুরোধ করবে টাকি মাছটাকে এই দুর্দশা থেকে মুক্ত করতে।

১৯৯ টাকা মোবাইল রিচার্জ জিতে নিন

অর্থাৎ সুমন বুয়াকে বলবে, টাকি মাছটাকে এ্যকুরিয়াম থেকে বের করে রান্না করতে।